চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

টাইব্রেকারে স্পেনকে কাঁদিয়ে শেষ আটে রাশিয়া

প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০১ ২২:৪৬:২৭ || আপডেট: ২০১৮-০৭-০১ ২২:৪৬:২৭

শেষ ষোলোর ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে শিরোপার অন্যতম দাবীদার সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন স্পেন এবং স্বাগতিক রাশিয়া। আত্মঘাতী গোলের সুবাদে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় স্পেন। পরে পেনাল্টির সুযোগ থেকে রাশিয়ানদের সমতায় ফেরান জুবা (১-১)। বিরতির পর আবার শুরু হয় রাশিয়া-স্পেনের লড়াই, তবে কোনো দলই গোলের দেখা না পেলে অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে গড়ায় ম্যাচটি। সেখানেও গোল না হলে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে।

টাইব্রেকারে ৪-৩ ব্যবধানে জয় পায় রাশিয়া। স্পেনের হয়ে স্কোর করেন ইনিয়েস্তা, পিকে। তৃতীয় শট মিস করেন কোকে। চতুর্থ শটে স্কোর করেন রামোস। পঞ্চম শটে ইয়াগো আসপাস মিস করেন। আর রাশিয়ার হয়ে প্রথম চার শটে স্কোর করেন স্মোলোভ, সার্জি ইগনাসেভিচ, গোলোভিন, চেরিসেভ। ৪-৩ ব্যবধানে জয় তুলে নেয় স্বাগতিক রাশিয়া।

গ্রুপ পর্বের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে স্পেন আর রানার্সআপ হয়ে নক-আউটের টিকিট কাটে রাশিয়া। মস্কোর লুঝনিকিতে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় মাঠে নামে দুই দল। ম্যাচের ১২ মিনিটে লিড নেয় স্প্যানিশরা। তবে, স্পেন দলের কেউ গোল করতে পারেনি। সার্জি ইগনাসেভিচের পায়ে লেগে নিজেদের জালে বল জড়ালে ১-০ গোলে পিছিয়ে পরে রাশিয়া। ৩৬ মিনিটের মাথায় আলেকজান্ডার গোলোভিন দারুণ এক শট নিয়েছিলেন স্পেনের ডিফেন্স চিঁড়ে। তবে, বল গোলপোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়। স্প্যানিশ গোলরক্ষক ডি গিয়াকে তেমনভাবে পরীক্ষায় যেতে হয়নি।

ম্যাচের ৩৯ মিনিটে আবারো রাশিয়ার আক্রমণে কেঁপে ওঠে স্পেনের রক্ষণ, বল ক্লিয়ার করে স্পেনকে রক্ষা করেন পিকে। তবে, পরের মিনিটেই পিকের হ্যান্ডবলের কারণে পেনাল্টি পায় রাশিয়ানরা। ৪৩ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি শট নেন জুবা, ডি গিয়াকে ফাঁকি দিতে সমস্যা হয়নি তার (১-১)। ৪৪ মিনিটে ইসকোর জোরালো শট রুখে দেন রাশিয়ার ডিফেন্ডাররা। বিরতির ঠিক আগে দিয়েগো কস্তার হেড গ্লাভসবন্দি করেন রাশিয়ান গোলরক্ষক।

বিরতির আগে ৭২ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখেছিল স্পেন। বাকি ২৮ শতাংশ বল ছিল রাশিয়ার দখলে। বিরতির পর ৫২ মিনিটের মাথায় নাচোর ক্রস ক্লিয়ার করেন রাশিয়ান ডিফেন্ডাররা। ম্যাচের ৬১ মিনিটের মাথায় আলেকজান্ডার সেমেদভের বদলি হিসেবে মাঠে নামেন রাশিয়ান তারকা ডেনিশ চেরিসেভ। ৬৫ মিনিটে গোলদাতা জুবার বদলি হিসেবে মাঠে নামেন স্মোলোভ আর ৬৭ মিনিটে ডেভিড সিলভার বদলি হিসেবে মাঠে নামেন স্পেন তারকা আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা এবং নাচোর জায়গায় আসেন দানি কারভাহাল। ৮১ মিনিটে দিয়েগো কস্তার বদলি হিসেবে নামেন ইয়াগো আসপাস।

৮৫ মিনিটের মাথায় ইনিয়েস্তার জোরালো শট ঝাঁপিয়ে পড়ে রুখে দেন রাশিয়ান গোলরক্ষক আকিনফেভ। ফিরতি বলে আবারো শট নেন আসপাস। এবারো রুখে দেন আকিনফেভ। নিশ্চিত গোলের হাত থেকে রক্ষা পায় রাশিয়া। ম্যাচের নির্ধারিত সময়ে আর কোনো দল গোলের দেখা পায়নি। ফলে, ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে।

ম্যাচের ৯৩ মিনিটের মাথায় অ্যাসেনসিওর জোরালো শট রাশিয়ান ডিফেন্সে বাধা পেয়ে ফিরে আসে। ১০০ মিনিটের মাথায় ইসকোর দূরপাল্লার জোরালো শট গ্লাভসবন্দি করেন রাশিয়ান গোলরক্ষক। ১০৪ মিনিটের মাথায় অ্যাসেনসিওকে তুলে নিয়ে স্পেন নামায় রদ্রিগোকে। ১০৯ মিনিটে রদ্রিগোর শট ঝাঁপিয়ে রুখে দেন আকিনফেভ, ফিরতি বলে শট নেন কারভাহাল। তবে, রাশিয়ার ডিফেন্সে বাধা পায় বল। পরের মিনিটে পিকের শটও বাধা পায় ডিফেন্সে। বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হলে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে।

Leave a Reply

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

July 2018
S M T W T F S
« Jun   Aug »
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  
%d bloggers like this: