চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

নারীদের জন্য বিপজ্জনক দেশের তালিকার শীর্ষে ভারত

প্রকাশ: ২০১৮-০৬-২৭ ১০:২২:৪৮ || আপডেট: ২০১৮-০৬-২৭ ১০:২২:৪৮

বিশ্বে নারীদের জন্য সবচেয়ে বিপজ্জনক দেশগুলোর তালিকা তৈরি করেছে নারী অধিকার নিয়ে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবি সংস্থা থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন। তালিকার শীর্ষে রয়েছে ভারত।  লন্ডনভিত্তিক সংস্থা  থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন  মঙ্গলবার দীর্ঘ সমীক্ষার ভিত্তিতে তৈরি করা এ তালিকা প্রকাশ করে। গত সাত বছর ধরে সংস্থাটি এই তালিকা প্রণয়ন করে আসছে।

থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন সাত বছর আগে প্রথম যখন সমীক্ষা করে,  সেই তালিকায় ভারত ছিল চার নম্বরে। ওই সময় তালিকার শীর্ষে ছিল আফগানিস্তান। সাত বছরের ব্যবধানে সেই আফগানিস্তান নেমে এসেছে দুই নম্বরে আর শীর্ষ স্থানে চলে গেছে ভারত। পৃথিবীর ৫৫০ জন বিশেষজ্ঞের মতামতের ভিত্তিতে এই সমীক্ষা করা হয়েছে। নারীস্বাস্থ্য, লিঙ্গবৈষম্য, যৌননিগ্রহ, নারীপাচার, জোর করে শ্রম আদায়, জোর করে বিয়ে এই ছয়টি বিষয়ের ভিত্তিতে সমীক্ষাটি করা হয়েছে। তালিকার শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যে নয়টিই এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার। আর দশম অবস্থানে থাকা একমাত্র পশ্চিমা দেশটি হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

টুইটারে ‘মি টু’ প্রচারণার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে নারীর ওপর যৌন সহিংসতার চিত্র সম্প্রতি সামনে বড় করে এসেছে। নারীর জন্য বিপজ্জনক এই দেশের তালিকার পঞ্চম স্থানে রয়েছে সৌদি আরব। তবে নারীর অর্থনৈতিক প্রবেশাধিকার, কাজের স্থান ও সম্পত্তির অধিকারের বৈষম্যের দিক দিয়ে এটি দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। বিপজ্জনক দেশের ছয় নম্বরে রয়েছে পাকিস্তান। কুপ্রথা, যৌন নিগ্রহ ও নারীপাচারের ক্ষেত্রে এক নম্বরে রয়েছে ভারত। বাকি সূচকগুলোতে কোথাও দুই, কোথাও তিন নম্বরে রয়েছে দেশটি।

২০১২ সালে ভারতে যৌন নির্যাতনবিরোধী কঠোর আইন করা হয়। তবে এরপরেও দেশটিতে প্রতিদিন পুলিশের কাছে প্রায় ১০০টি যৌন নির্যাতনের অভিযোগ আসে। দেশটির ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালে দেশটিতে ৩৯ হাজার যৌন নির্যাতনের অভিযোগ রেকর্ড করা হয়েছে, যা বিগত বছরগুলোর তুলনায় ১২ শতাংশ বেশি।

Leave a Reply

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

%d bloggers like this: