চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট ২০১৮

উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি রাশিয়া – সৌদি আরব

প্রকাশ: ২০১৮-০৬-১৪ ১০:৫৮:০০ || আপডেট: ২০১৮-০৬-১৪ ১০:৫৮:০০

রাশিয়া ও সৌদি আরবের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠছে রাশিয়া বিশ্বকাপের। জয় দিয়ে মিশন শুরু করতে চায় স্বাগতিকেরা। অন্যদিকে ১৯৯৪-এর পর একটিও জয় না পাওয়া সৌদি আরবের প্রেরণা সাম্প্রতিক পারফর্মেন্স। মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায়।

লুঝনিকি স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী দিনের এ’ গ্রুপের দুই দল সৌদি আরব ও স্বাগতিক রাশিয়ার কাউকেই সেই অর্থে ফেবারিট ধরা যাচ্ছে না। কারণ গ্রুপর অন্য দুই দেশ উরুগুয়ে এবং মিশর পারফরমেন্সের কারণেই জায়গা করে নিয়েছে ফেবারিটের তালিকায়।

২০১৪ বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বই পার করতে পারেনি রাশিয়া। ২০০২ এ এসেছে শেষ জয়। তবে, এবার স্বাগতিক দর্শকদের সেই হতাশা কাটাতে প্রস্তুত স্তানিসলাভ চেরচেশভের শিষ্যরা। যদিও সাম্প্রতিক পারফরমেন্স মোটেও সুসংবাদ দিচ্ছে না রাশানদের। গেল পাঁচ ম্যাচে শুধু স্পেইন ও তুরস্কের বিপক্ষে ড্র এসেছে। গোলোভিনের পাশাপাশি এবার নজর থাকবে সাবেক চেলসি ফুলব্যাক ঝিরকভের ওপর। আসর শেষেই হয়তো ফুটবলকে বিদায় বলবেন তিনি।

রাশিয়ার কোচ স্তানিসলাস চেরচেশভ বলেন, “আমরা প্রস্তুত। একেবারে প্রথম দিন থেকেই আমরা অনেক পরিশ্রম করছি। এবার সেটার প্রতিফলন ঘটাতে হবে। সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচ জেতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা এতদিন যে পরিকল্পনা করেছি সেটা মাঠে করে দেখাতে পারলে জয়ের বিষয়ে আমি আশাবাদি।”

রাশিয়ার চেয়ে তুলনামূলক এগিয়ে সৌদি আরব। র‍্যাঙ্কিংয়ে তিন ধাপ ওপরে ৬৭তে। ১৯৯৪তে প্রথমবার অংশ নেয়ার পর টানা চার আসরে খেলেছে তারা। দুই আসর বাদে আবারো গ্রেটেস্ট শো অন আর্থে চমক দেখানোর প্রত্যাশা। প্রথমবার অংশ নেয়া আসরে শেষ ১৬তে খেলেছিল সৌদি।

পরিসংখ্যানও এগিয়ে রাখছে সৌদিকে। সবশেষ পাঁচ ম্যাচে দুই জয়। হারিয়েছে গ্রিস ও আলজেরিয়াকে। একই সাথে মন খারাপ করা বিষয়ও আছে। ১৯৯৪ সালে প্রথমবার খেলার পর আর কোন আসরে একটিও ম্যাচ জিততে পারেনি তারা। লুঝনিকিতে জয় দিয়ে শুরু করতে চান কোচ আঁতোয়া পিজ্জি।

দুই দলের দেখা হয়েছিল একবারই। ২৫ বছর আগের সে ম্যাচে রাশিয়াকে ৪-২ গোলে হারিয়েছিল সৌদি আরব।

Leave a Reply

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

%d bloggers like this: