চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮

কক্সবাজার-কুমিল্লায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

প্রকাশ: ২০১৮-০৫-৩০ ০৩:৫৩:২৫ || আপডেট: ২০১৮-০৫-৩০ ০৩:৫৩:২৫

কক্সবাজার ও কুমিল্লায় পৃথক মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে র্যাব-পুলিশের বন্দুকযুদ্ধে ২জন নিহত হয়েছে। কক্সবাজার সদর থানার কবিতা চত্বর এলাকায় র্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মো. মজিবুর রহমান (৪২) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। অন্যদিকে কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার লড়িবাগ এলাকায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে রোছমত আলী (৪০) নামের এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন।
কক্সবাজারে নিহত মজিবুর রহমান নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলার তেঁতুলিয়া গ্রামের মৃত আবদুর রশিদের ছেলে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা ১৫ মিনিটের দিকে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাটি ঘটে বলে র্যাব সূত্রে জানা গেছে। র্যাব জানায় মজিবুরের নামে মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধে অন্তত দশটি মামলা রয়েছে।
র্যাব-৭-এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো. রুহুল আমিন গণমাধ্যমকে বলেন, মাদক কেনা-বেচা হচ্ছে এমন খবর পেয়ে তাঁরা সেখানে অভিযান চালান। ঘটনাস্থলে পৌঁছালে সেখানে অবস্থানরত মাদক ব্যবসায়ীরা র্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। র্যাবও গুলি ছুড়ে পাল্টা জবাব দেয়। ঘটনাস্থলে প্রায় চার থেকে পাঁচজন মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। গোলাগুলির একপর্যায়ে সবাই পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থলে মজিবুরের গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ পড়ে থাকে। ঘটনাস্থল থেকে মজিবুরের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে র্যাব।
এ ছাড়া সেখান থেকে ছয় হাজার পিচ ইয়াবা বড়ি, একটি দেশি ওয়ান শুটার, তিন রাউন্ড গুলি, দুইটি গুলির খালি খোসা উদ্ধার করে র্যাব–৭।
অন্যদিকে মঙ্গলবার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে কুমিল্লায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে রোছমত আলী মারা যান।নিহত ওই মাদক ব্যবসায়ী উপজেলার ছয়গ্রাম এলাকার মৃত আলী আহাম্মদের পুত্র। মুঠোফোনে বিষয়টি গণমাধ্যমকে বুড়িচং থানার ওসি মনোজ কুমার দে নিশ্চিত করেছেন।
ওসি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক উদ্ধার করতে উপজেলার লড়িবাগ এলাকায় রাস্তার পাশে তিনি পুলিশ নিয়ে অবস্থান নেন। সেখানে মাদক ব্যবসায়ী রোছমত ও তাদের সহযোগিরা পৌঁছলে পুলিশ তাদের আটকের চেষ্টা করে। তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এ সময় পুলিশ আত্মরক্ষায় ২৫ রাউন্ড শটগানের গুলি ছোঁড়ে।
এ সময় মাদক ব্যবসায়ী রোছমত গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল হাসপাতালে নেয়ার পর ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ওই অভিযানের সময় তিনজন পুলিশ আহত হয়েছেন। তারা হলেন – এসআই মোয়াজ্জেম, এএসআই সহিদ ও কনষ্টেবল আল আমিন। আহত পুলিশদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১ রাউন্ড কার্তুজসহ একটি পাইপগান ও ৪০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে।ওসি আরও জানান, নিহত রোছমত আলী একজন তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী এবং তার বিরুদ্ধে থানায় ৭টি মাদকের মামলা রয়েছে।

Leave a Reply

ক্যালেন্ডার এবং আর্কাইভ

May 2018
S M T W T F S
« Apr   Jun »
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
%d bloggers like this: