কক্সবাজারে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে টানাহেচঁড়া ও কামড়িয়ে জখম করে ধর্ষণের চেষ্টা করেছে আবদুল কাদের প্রকাশ মধু (২০) নামের এক বখাটে। ওই যুবককে আসামি করে ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

গত শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে চকরিয়ার দুর্গম বুড়িপুকুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শনিবার রাতে মামলা করা হয়।

গত রবিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত অভিযুক্ত বখাটেকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। বখাটে আবদুল কাদের চকরিয়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডস্থ খন্দকারপাড়ার আমজাদ হোসেনের ছেলে।

চিরিংগা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন বলেন, শুক্রবার বিকালে ওই ছাত্রীকে বাড়িতে একা রেখে পরিবারের সবাই একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যায়। বাড়িতে কেউ না থাকায় ওই ছাত্রী বিকালে বাড়ির বারান্দায় বসে পড়ালেখা করছিল। এসময় বখাটে আবদুল কাদের বাড়ির পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় কেউ নাই বুঝতে পেরে ওই বাড়িতে ঢুকে পড়ে এবং ওই স্কুল ছাত্রীকে টানাহেঁচড়া, শরীরের বিভিন্ন অংশে কামড়িয়ে জখম ও জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় সে চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে বখাটে আবদুল কাদের পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। ছাত্রীর অবস্থা দেখে আরো পরীক্ষা করা প্রয়োজন মনে করায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওসিসিতে রেফার করা হয়।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইয়াছির আরাফাত বলেন, ওই ছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আচঁড় ও কামড়ের চিহৃ দেখা গেছে।  ধর্ষণ চেষ্টার মামলা হলেও ওসিসিতে পরীক্ষার পর প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। অভিযুক্ত আবদুল কাদেরকে গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।