চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮

স্কুল ছাত্রী তাসপিয়ার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

প্রকাশ: ২০১৮-০৫-০৩ ১৫:০০:২২ || আপডেট: ২০১৮-০৫-০৩ ১৫:০২:১১

ময়নাতদন্ত শেষে স্কুল ছাত্রী তাসপিয়া আমিনের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ময়নাতদন্তে উপস্থিত চিকিৎসক সূত্রে জানা গেছে নিহতের পিঠ, পা ও হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নিহত তাসপিয়ার লাশ তার গ্রামের বাড়ি টেকনাফের নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সেখানে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

এদিকে, তাসপিয়া আমিনের হত্যার ঘটনায় কথিত প্রেমিক আদনান ও তার সহযোগী ৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং আরো অজ্ঞাত নামা ৮ জনকে আসামী করে নিহতের পিতা মোহাম্মদ আমিন নগরির পতেঙ্গা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

গতকাল হত্যাকারী সন্দেহে নিহতের কথিত প্রেমিক আদদান মির্জাকে আটক করে পতেঙ্গা থানা পুলিশ। নিহতের পরিবারের দাবী ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্রে আদনান গত ১লা মে বিকেলে তাসপিয়াকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। সেদিন তারা দুজন মেহেদীবাগ এলাকায় চায়না গ্রীল নামের এক রেস্তোরায় দেখা করে। পরে সন্ধ্যায় তাসপিয়াকে একটি সিএনজি টেক্সিতে চড়ে জিইসি এলাকার দিকে যেতে দেখা যায়।

বুধবার সকালে নগরীর পতেঙ্গায় নেভাল একাডেমির অদূরে ১৮ নম্বর ঘাট এলাকায় চোখ, নাক-মুখ থ্যাঁতলানো অবস্থায় তাসফিয়ার মরদেহ পায় পুলিশ। প্রথমে পরিচয় নিশ্চিত না হলেও দুপুরে পরিবারের লোকজন থানায় গিয়ে মরদেহ শনাক্ত করেন।

তাসফিয়া কক্সবাজার জেলা সদরের ডেইলপাড়া এলাকার মো. আমিনের মেয়ে। চট্টগ্রাম নগরীর ওআর নিজাম রোডে তাদের বাসা। সে সানশাইন গ্রামার স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিলো।

 

Leave a Reply